ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার গতিতে চলবে গাড়ি চালক ছাড়াই

Sunday, December 20th, 2020

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক:;চলতি বছরেই Zoox নামের সংস্থাটিকে অধিগ্রহণ করেছ অ্যামাজন। সেই সূত্রে দ্রুতগতিতে চলছে Zoox-এর প্রজেক্ট। প্রজেক্ট চালকহীন গাড়ি তৈরির। এবার সেই সেল্ফ ড্রাইভিং গাড়ির ভিডিও সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে। প্রস্তুতকারী সংস্থার তরফে জানা গিয়েছে, এই সেল্ফ ড্রাইভিং রোবোট্যাক্সিতে সিটের সংখ্যা হবে ৪টি।

ইলেকট্রিক গাড়িটি হবে বাই-ডিরেকশনাল। অর্থাৎ, এটিকে ফরওয়ার্ড বা ব্যাকওয়ার্ডে সমানে চালানো যাবে। এর ছোট ছোট স্টাইলিশ চাকাগুলোও বেশ আকর্ষণীয়। যা গাড়িটিকে গন্তব্যে পৌঁছতে কিংবা যথাসময়ে গাড়ি পার্ক করাতেও সাহায্য করে।

সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয়টি হলো, কোনো চালক বা স্টিয়ারিং হুইল ছাড়াই দ্রুত গতিতে ছুটবে গাড়িটি। এ ক্ষেত্রে ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৭৫ মাইল বা ১২০ কিলোমিটার বেগে চলতে পারে Zoox। মূলত ব্যাটারিতে চলবে এই রোবোট্যাক্সি। সেই জন্য গাড়িটির মধ্যে ১৩৩ kWh ব্যাটারি ইনস্টল করা আছে।

সম্পূর্ণ চার্জ করে নিলে ১৬ ঘণ্টা পর্যন্ত চলতে পারে গাড়িটি। সংস্থার দাবি, ব্যাটারি যদি ঠিকভাবে চার্জ করা হয়, তা হলে কোনো ব্রেক ছাড়া প্রায় সারাদিন কাজ করতে পারবে এই গাড়িটি।

এ ক্ষেত্রে Zoox-কে অধিক কর্মক্ষম করে তুলতে, এরমধ্যে একাধিক ফিচার ও টেকনোলজি ইনস্টল করা হয়েছে। প্রস্তুতকারীরা জানাচ্ছেন, Zoox-এর মধ্য AI (এ আই) টেকনোলজি ইনস্টল করা হয়েছে। রয়েছে ট্র্যাফিক ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। অর্থাৎ রাস্তায় একবার চলতে শুরু করলে আগাম বিপদ সম্পর্কে নিজে থেকেই সচেতন হয়ে যাবে গাড়িটি।

Car-(1).jpg

এ ক্ষেত্রে রাস্তায় উল্টো দিক থেকে অন্য গাড়ি এলে, পথযাত্রী এমনকি রাস্তার মাঝে কোনো পশুপাখি চলে এলেও তা আগাম টের পেয়ে যাবে গাড়িটি। নতুন এই যানটিতে রয়েছে একাধিক ক্যামেরা, র্যাডার ও লাইডার টেকনোলজি।

এর ফলে আশপাশে ৩৬০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে নজরদারি চালাতে পারে গাড়িটি। প্রস্তুতকারীরা জানাচ্ছেন, যে কোন অ্যাঙ্গেল থেকে ১৫০ মিটার পর্যন্ত এলাকায় নজরদারি চালাতে পারবে গাড়িটি।

তবে আকর্ষণীয় লুকের এই যান তথা সেল্ফ ড্রাইভিং শাটল নিয়ে নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। বর্তমানে আমেরিকার লাস ভেগাস ও সান ফ্রান্সিস্কোতে গাড়িটির পরীক্ষা চলছে। বিশ্ববাজারে সাধারণের জন্য এটি কবে থেকে পাওয়া যাবে তা এখনো জানা যায়নি। প্রস্তুতকারী সংস্থার তরফেও এ নিয়ে বিস্তারিত জানানো হয়নি।