এক মাস পর ভোলার কলেজছাত্রী লাশ উত্তোলন

Monday, February 10th, 2020

বিজয় নিউজ:: ভোলার দৌলতখান উপজেলায় আদালতের নির্দেশে এক মাস পর দৌলতখান মহিলা কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী গৃহবধূ লাইজু আক্তারের লাশ উত্তোলন করেছে প্রশাসন।

লাইজু আক্তারকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে মর্মে তার ভাই আদালতে অভিযোগ দাখিল করলে আদালত ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উত্তোলনের নির্দেশ দেন।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ভোলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. মহসিন ফারুকের নেতৃত্বে দৌলতখান থানা পুলিশ উপজেলার চরপাতা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের পারিবারিক কবরস্থান থেকে ওই কলেজছাত্রীর লাশ উত্তোলন করে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. মহসিন ফারুক জানান, আদালতের আদেশে ময়নাতদন্তের জন্য এ লাশ উত্তোলন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২ জানুয়ারি রাতে দৌলতখান মহিলা কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ও উপজেলার চরপাতা এলাকার মো. মোশারেফ হোসেন ওরফে মসু সিকদারের মেয়ে লাইজু আক্তারকে হত্যা করে ঘরে রেখে সবাই পালিয়ে যায় তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন। পরে পুলিশ লাইজুর শ্বশুরবাড়ি সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের তুলাতলি গ্রাম থেকে তার লাশ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় লাইজুর বড় ভাই ইসমাইল সিকদার বাদী হয়ে লাইজুর স্বামী তানজিলসহ সাতজনকে আসামি করে ভোলা সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। কিন্তু পলাতক থাকায় এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।