ধর্মপাশায় খইনে বিষ ঢেলে কোটি টাকার দেশীয় প্রজাতির মাছ নষ্ট করেছে দুর্বিত্তরা

Sunday, January 24th, 2021

গিয়াস উদ্দিন রানা,ধর্মপাশা(সুনামগঞ্জ):: সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলাধীন চামরদানী ইউনিয়নের অন্তভূক্ত কাইলানী হাওরে ব্যক্তি মালিকানাধীন আবিদনগর ও দুগনই গ্রামের শতাধিক কৃষকের মালিকানাধীন খইনে দুর্বিত্তরা গভীর রাতে শতাধিক খইনে বিষ ঢেলে কয়েক কোটি টাকার মাছ নষ্ট করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
অনুসন্ধানে জানা যায়, উপজেলার চামরদানী ইউনিয়নের অন্তভূক্ত কাইলানী হাওর জলমহালে ব্যক্তি মালিকানাধীন শতাধিক খইনে গত ২১ জানুয়ারী দিবাগত গভীর রাতে দুর্বিত্তরা বিষ ডেলে খইনে থাকা কয়েক কোটি টাকার দেশীয় প্রজাতির মাছের ডিমসহ মাছের পোনা নষ্ট করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
, দুগনই গ্রামের আনোয়ার,মুরশাদ, আব্দুর রাজ্জাক, আবিদনগর গ্রামের আওলাদ, রেহান ও উসতার মিয়া সহ শতাধিক কৃষকের খইনে বিষ প্রয়োগ করে মাছের বংশ ধ্বংস করছে। এতে খইনে সংরক্ষনকৃত কয়েক কোটি টাকার মাছ মরে ভাসমান অবস্থায় রয়েছে। এতে খইনের মালিকরা সর্বশান্ত হয়ে পড়েছে।
এব্যাপারে খইনের মালিক আবিদনগর গ্রামের আনোয়ার বলেন, একই ইউনিয়নের আমাদের প্রতিবেশী আমজোড়া গ্রামের আলম, সুহেল, মতি সহ একটি প্রতারক চক্র জলমহালে বিষ প্রয়োগ করে মাছ ধরে আড়তে বিক্রি করছে। আমজোড়া গ্রামের প্রতারক চক্রটি কিছুদিন আগে রাতের অন্ধকারে খইনে বিষ প্রয়োগ করার সময় আমার হাতে থাকা বল্লম দিয়ে ঘা দিলে ওই ঘা তাদের পায়ে লাগার পরও পালিয়ে যায়। এখনো আমরা উলেøিখত ব্যক্তিদের সন্দেহ করছি। এব্যাপারে প্রশাসনের সুদৃষ্টি একান্ত প্রয়োজন বলে এলাকাবাসীর দাবি। উল্লেখিত আমজোড়া গ্রামের তিন প্রতারককে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনলেই সকল রহস্য বেড়িয়ে আসবে বলে এলাকাবাসী মনে করছেন।
এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মুনতাসির হাসান তিনি বলেন, জলমহালে বিষ প্রয়োগ করে দেশীয় প্রজাতির মাছের ডিম সহ মাছের পোনা নষ্ট করছে। এমন প্রমান পেলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।