বরিশাল জমজম নার্সিং ইনস্টিটিউটে ভূত ‘ভয়-আতঙ্কে’ ৪ শিক্ষার্থী হাসপাতালে

Saturday, February 13th, 2021

বিজয় নিউজ:: রাতের অন্ধকারে অজানা ভূত আতঙ্কে ভুগে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বরিশালের জমজম নার্সিং ইনস্টিটিউটের ৪ শিক্ষার্থী।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওই প্রতিষ্ঠানের হোস্টেলে বসবাসরত ২০ শিক্ষার্থী ভয় পেয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ১৬ শিক্ষার্থী হাসপাতাল ত্যাগ করেন। ঘটনার পরপরই সকল শিক্ষার্থী হোস্টেল ছাড়লে কর্তৃপক্ষ শুক্রবার পর্যন্ত ওই ইনস্টিটিউট বন্ধ ঘোষণা করেন।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শিক্ষার্থীরা হলেন- নার্সিং অনুষদের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী জামিলা আক্তার, সেতু দাস, প্রথম বর্ষের তামান্না ও বৈশাখী।

ইনস্টিটিউটের কো-অর্ডিনেটর জুবায়ের বলেন, ‘গত ৪-৫ দিন ধরে হোস্টেলের ছাত্রীরা রাতে ভূতের ভয় পেয়েছে বলে দাবি করে। তাদের দাবির প্রেক্ষিতে হুজুর এনে দোয়া-মিলাদ পড়ানো হয়। এঘটনার পরও শুক্রবার সন্ধ্যায় আরও দুই ছাত্রী ভয় পাওয়ার কথা জানায়। এতে ছয় তলা বিশিষ্ট হোস্টেলে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। রাতে কয়েকজন অসুস্থ্য হয়ে পড়লে হাসপাতালে নেওয়া হয়। হাসপাতালে এখনও ৪ জন চিকিৎসাধীন রয়েছে।’

হোস্টেলের বাবুর্চি খালেদা বলেন, ‘ভূত আতঙ্কে শিক্ষার্থীরা অসু¯’ হয়ে পড়েছেন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।’

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক শিক্ষার্থীর মা জানান, তার মেয়ে মারাত্মক ভয় পেয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। কিভাবে ভয় পেলো তা তিনি বলতে রাজি হননি’। ।

শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক সোলায়মান বলেন, ‘অসু¯’ ওই চার ছাত্রী এক কক্ষে ছিলেন। তারা একত্রে ভয় পেয়েছেন। এটাকে অ্যাংজাইটি ডিজঅর্ডার বলি। চিকিৎসা চলছে। তারা দ্রুত সু¯’ হয়ে উঠবেন।’

জমজম নার্সিং ইন্সটিটিউটের চেয়ারম্যান মাসুদুল আলম খান বলেন, ‘হোস্টেলের ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলায় ৪৫ জন ছাত্রী থাকেন। বেশকয়েক দিন ধরে অভিযোগ করে আসছিলো যে, ছাদের ওপরে হাঁটাহাঁটি ও ইট নিক্ষেপের আওয়াজ শোনা যায়। শুক্রবার সন্ধ্যায় ভয়-আতঙ্কে কয়েকজন অজ্ঞান হয়ে পড়েছেন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে।