ভোলায় পাওনা টাকা চাওয়ায় চাচার হাতে ভাতিজা খুন

Saturday, September 7th, 2019

ভোলায় পাওনা টাকা চাওয়ায় আপন চাচার হাতে মো. মনির (৩০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। নিহত মনির ভোলা সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের বালিয়াকান্দি গ্রামের মো. নাছির আহম্মেদের ছেলে। এ ঘটনায় পুলিশ শনিবার রোকেয়া বেগম নামে একজনকে আটক করেছে।

নিহতের পিতা মো. নাছির আহম্মেদ জানান, গত এক বছর আগে আমার ছেলে মনিরের কাছ থেকে আমারই বড় ভাই (নিহতের চাচা) সেলিম ৪০ হাজার টাকা ধার নেয়। টাকা নেয়ার সময় সেলিম এক মাসের মধ্যে টাকা পরিশোধ করে দিবে বলে।

কিন্তু এক বছর পেরিয়ে গেলেও সে টাকা ফিরত দেয়নি সেলিম। টাকা চাইতে গিয়ে আমার ছেলের সঙ্গে সেলিমের কয়েকবার বাকবিতণ্ডা হয়। বেশ কয়েকবার স্থানীয় পর্যায়ে সালিশও হয়। কিন্তু সেলিম টাকা ফেরত দেয়নি।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টার দিকে সেলিমের সঙ্গে মনিরের রাস্তায় দেখা হলে টাকা ফেরত চায় সে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সেলিম ও তার ছেলে সাইফুল এবং সবুজসহ অজ্ঞাত ৫-৬ জন মিলে দেশীয় অস্ত্র ও রড দিয়ে মনিরকে মারধর করে।

এ সময় মনিরের ডাক-চিৎকারে তার স্ত্রী আসমা বেগম ও পরিবারের লোকজন ছুটে গেলে তাদেরও মারধর করে হামলাকারীরা। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাদের গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে মনিরের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় চিকিৎসকরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকায় তার মৃত্যু হয়।

ভোলা মডেল থানার ওসি মো. ছগীর মিঞা জানান, এ ঘটনায় নিহতের পিতা নাছির আহম্মেদ বাদী হয়ে ৩ জনের নাম উল্লেখ্য ও ২-৩ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ইতিমধ্যে এ ঘটনায় জড়িত একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।