ভোলায় ১০ ভূয়া পরীক্ষার্থীসহ মাদ্রাসা সুপার আটক

Tuesday, February 4th, 2020

ইয়াছিনুল ঈমন, ভোলা ;; ভোলার দৌলতখান উপজেলায় প্রক্সি (অন্যের পরীক্ষা) দিতে আসা ১০ শিক্ষার্থীসহ মাদ্রাসার সুপারকে আটক করেছে জেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার সরকারি আবি আবদুল্লাহ কলেজের এসএসসি কেন্দ্র থেকে তাদের আটক করা হয়।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আটককৃতদের মধ্যে জয়নগর বালিকা দাখিল মাদ্রাসার সুপার মো. জাকির হোসেনকে দুই বছর ও একই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী লিজা আক্তারকে এক বছরের জেল প্রদান করা হয়। বাকিদের বয়স কম হওয়ায় তাদের নিয়মিত মামলা করে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

জানা গেছে, ওই কেন্দ্রে লিজা আক্তার (আঁখি বেগম নামে), নিয়ানা আক্তার (ফাতেমা বেগম নামে), রাবেয়া সুলতানা (উম্মেহাবিবা নামে), ময়না আক্তার (সুমাইয়া আক্তার নামে), হামিদা বেগম (আসমা বেগম নামে), নাজমুন নাহার (শিলা আক্তার নামে), মোহাম্মদ জয়ের মেয়ে বিবি খাদিজা (খাদিজা বেগম নামে), রুমা বেগম (নূপুর বেগম নামে), ইমা আক্তার (বিবি হাজেরা নামে), ফারজানা আক্তার (সাদিয়া আক্তার নামে) পরীক্ষা দেয়।

তারা সবাই দৌলতখান উপজেলার জয়নগর বালিকা দাখিল মাদ্রসার দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তারা একই প্রতিষ্ঠানের অন্য পরীক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন কার্ডে নিজেদের ছবি লাগিয়ে পরীক্ষা দিতে এসেছে।

ভোলা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার দৌলতখানের সরকারি আবি আবদুল্লাহ কলেজ কেন্দ্রে দাখিল হাদিস বিষয়ের পরীক্ষা চলাকালীন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. আতাহার মিয়া, অতিরিক্তি জেলা প্রশাসক (শিক্ষা আইসিটি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানা চৌধুরীসহ জেলা প্রশাসনের একটি টিম অভিযান চালায়।

এ সময় ওই কেন্দ্র থেকে ১০ জন ভুয়া পরীক্ষার্থী আটক করা হয়। এ ছাড়াও এ কাজের সঙ্গে জড়িত থাকায় ওই মাদ্রাসার সুপার মো. জাকির হোসেনকেও আটক করা হয় বলে তিনি জানান।