হিজলা মেঘনার ভাঙন,৪ মৌজা কেটে মেহেন্দিগঞ্জের সাথে সম্পৃৃক্তকরণ প্রতিবাদে মানববন্ধনে ১৪৪ধারা জারি

Sunday, July 12th, 2020

বিজয় নিউজ:: বরিশালের হিজলা উপজেলায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।বরিশালের হিজলা উপজেলা পরিষদকে মেঘনার ভাঙন থেকে রক্ষ, ৪ মৌজা কেটে মেহেন্দিগঞ্জের গোবিন্দপুর ইউনিয়নের সাথে সম্পৃৃক্তকরণ প্রতিবাদে উপজেলা সর্বদলীয় ঐক্য জোটের ব্যানারে বরিশাল মহানগর আ’লীগের সহসভাপতি এ্যাড আফজালুল করিম ও হিজলা উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সুলতান মাহমুদ টিপু ১২ জুলাই উপজেলা চত্তরে মানববন্ধন এর আয়োজন করেন।

অপরদিকে একই দাবিতে একই দিনে হিজলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বেলায়েত হোসেন ঢালী ও বড়জালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান পন্ডিত শাহাবুদ্দিন আহম্মেদ উপজেলা সদর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু ম্যুড়ালে মানববন্ধন কর্মসুচীর আয়োজন করেন।

স্থানীয়দের ধারণা এ নিয়ে উপজেলা আ’লীগ ও এমপিগ্রুপের পাল্টাপাল্টি মানববন্ধন কর্মসূচী ঘোষনা করায় উপজেলা প্রশাসন ১৪৪ ধারা জারি করেন।
এ্যাড আফজালুল করিম, সুলতান মাহমুদ টিপু, জানান আমরা হিজলা উপজেলার মানচিত্র রক্ষা এবং মেঘনা নদীর ভাঙন থেকে হিজলা উপজেলা রক্ষার দাবিতে উপজেলা পরিষদ মাঠে ১২ জুলাই সর্বদলীয় ঐক্য পরিষদের ব্যানারে মানব বন্ধনের আয়োজন করি। সন্ধ্যায় খবর শুনি হিজলা উপজেলায় ১৪৪ ধারা জরি করা হয়েছে। আফজালুল করিম আরও জানান “আমরা হিজলার মানচিত্র রক্ষা এবং মেঘনার ভাঙন থেকে উপজেলা পরিষদ ও হিজলাকে রক্ষার দাবিতে সরকারের স্বাহ্যবিধি মেনে মানববন্ধন চালিয়ে যাব।”

হিজলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগ সহসভাপতি বেলায়েত হোসেন ঢালী ও বড়জালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পন্ডিত শাহাবুদ্দিন আহম্মেদ জানান, আমরা বড়জালিয়াবাসি হিজলা উপজেলা মেঘনার ভাঙন থেকে রক্ষার জন্য মানব বন্ধনের আয়োন করি। আমাদের ন্যয্য দাবি সরকারের কাছে পেশ করা। সেটি বাস্ত বায়ন হলো না। সরকারের সার্থে ১৪৪ধারা জারি করা হয়েছে, এব্যাপারে আমাদের কোন মন্তব্য নেই।
হিজলা উপজেলায় সদ্য যোগদানকারি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বকুল চন্দ্র কবিরাজ জানান করনা এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।