জাপানে অ্যানিমেশন স্টুডিওতে আগুনে নিহত ৩০

Thursday, July 18th, 2019

জাপানের কিওটোতে একটি অ্যানিমেশন স্টুডিওতে লাগা আগুনে অন্তত ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় দমকল বাহিনীর কর্মকর্তারা। এ ঘটনায় অন্তত ৩৬ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর। খবর এপি।

বৃহস্পতিবার সকালের এ ঘটনা ঘটেছে। প্রায় ৩০ জনের কোনো খবর পাওয়া যাচ্ছে না বলে জাপানের রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদমাধ্যম এনএইচকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টার সময় তিনতলা ওই ভবনটিতে আগুন লেগে ছড়িয়ে পড়ে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চলছিল। ভবনের উপরের তলায় বেশি মানুষের মৃতদেহ পাওয়া যায়। তবে কর্তৃপক্ষ ২০ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে। তারা ধরাণা করছেন আর ১০ জন নিহত হয়েছেন।

এদিকে মার্কিন গণমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে বলা হয়েছে নিহততের সংখ্যা ২৬ জন। তবে সিএনএন জানিয়েছে আগুনের ঘটনায় ২৩ জন মারা গেছেন।

এর আগে দেশটির ফায়ার সার্ভিসের তরফে ২৩ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয়েছিল।

স্থানীয় গণমাধ্যমে দেওয়া পুলিশের উদ্ধৃতিতে বলা হয়েছে, এক ব্যক্তি কিওটো অ্যানিমেশন কোম্পানির স্টুডিও ভেঙে প্রবেশ করে চারদিকে অজ্ঞাত তরল ছিটিয়ে দেয়।

ওই সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে। তার নাম প্রকাশ করা হয়নি। আটকের পর শরীরে জখম থাকার কারণে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কিওটো বিভাগীয় পুলিশের এক মুখপাত্র বলেছেন, এক ব্যক্তি তরল ছুড়ে মেরে সেখানে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে।

সন্দেহভাজনের বিষয়ে বিস্তারিত আর কোনো তথ্য বা আগুন লাগানোর কারণ সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি।

ওই ভবনে আগুন লাগানোর পর সন্দেহভাজনকে ‘অকালমৃত্যু’ বলতে শোনা গেছে বলে এনএইচকে জানিয়েছে।

দমকলের এক মুখপাত্র বলেছেন, আমরা তিনতলা ওই ভবনটিতে আটকা পড়া বেশ কয়েকজনকে বের করে আনার চেষ্টা করছি।

ঘটনাস্থলের কাছে থাকা লোকজন জানিয়েছেন, তারা টানা কয়েকটি বিস্ফোরণের শব্দ শুনেছেন, তারপর কম্বলে পেচিয়ে লোকজনকে বের করে আনা হচ্ছে এমনটি দেখেছেন।

রয়টার্স জানিয়েছে, স্টুডিওটি ‘সাউন্ড! ইফোনিয়াম’ সিরিজ তৈরি করে আসছিল এবং তাদের ‘ফ্রি! রোড টু দ্য ওয়ার্ল্ড- দ্য ড্রিম’ নামের সিনেমাটি চলতি মাসে রিলিজ হওয়ার কথা ছিল।