এডিস নিধনে ‘যুদ্ধ’ ঘোষণা মন্ত্রীর

Friday, July 19th, 2019

ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়ার বাহক এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত অভিযান চলবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেছেন, এটি আমাদের কাছে এক প্রকার যুদ্ধ।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর মানিক মিয়া অ্যাভিনিউয়ে ‘এডিস মশার উৎপত্তিস্থল ধ্বংস করুন ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া থেকে মুক্ত থাকুন’ শীর্ষক এক সচেতনতামূলক র‌্যালি উদ্বোধনের সময় এসব কথা বলেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এটা এক প্রকার যুদ্ধ বলা চলে। ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে আমাদের যা কিছু করা দরকার তার সব কিছুই করা হচ্ছে। এডিস মশার উৎপত্তিস্থল বন্ধ করতে পারলে এই যুদ্ধে জয়ী হওয়া সম্ভব।’

মন্ত্রী আরও বলেন, এডিস মশার উৎপত্তিস্থল ধ্বংসে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। সবার সচেতনতাই পারে এর থেকে মুক্ত থাকতে।

এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে এই র‌্যালির আয়োজক ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, মশক নিধনে যারা কাজ করছেন, তাদের সবার ছুটি বাতিল করা হয়েছে। আগামী ঈদেও তাদের ছুটি বাতিল থাকবে। এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

ঢাকাবাসীর প্রতি মেয়র বলেন, এডিস মশা নর্দমায় জন্ম নেয় না। এরা বাড়িতেই জন্ম নেয়। আপনার-আমার জমিয়ে রাখা পানিতেই এডিস মশা জন্ম নেয়। এটিকে বলা হয় গৃহপালিত মশা। কাজেই এটিকে প্রতিরোধ করতে হলে সব পরিবারকে এগিয়ে আসতে হবে। কোথাও যাতে পানি জমতে না পারে এবং এডিস মশা জন্ম না নিতে পারে।

তিনি বলেন, মশক নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির মশক নিধনকর্মী ও সুপারভাইজাররা নিয়মিত কাজ করছে। প্রতিটি এলাকার মশক নিধনকর্মী, সুপারভাইজার এবং মনিটরিং কর্মকর্তার নাম ও মোবাইল নম্বর ডিএনসিসির ওয়েবসাইটে দেয়া আছে। যে কেউ তাদের ফোন করে এ বিষয়ে জানাতে পারবেন। সেই সঙ্গে জবাবদিহির আওতায় আনা যাবে।

র‌্যালিতে আরও উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানসহ ডিএনসিসি এলাকার কাউন্সিলর, নেতাকর্মী, চলচ্চিত্র, টেলিভিশন, ক্রীড়াসহ অন্যান্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব।