আর কবে হবে বরিশাল শেরে-বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে করোনা টেস্ট চালু

Wednesday, June 10th, 2020

তাহেরুল ইসলাম সুমন:: কেন আজ এত দিন পরও সরকারি শেরেবাংলা মেডিকেল হাসপাতালে করোনা রোগী টেস্ট চালু করতে পারেন নাই তার মুল কারন হচ্ছে দক্ষ জনবল, এক দিন দু দিনে যেমন গাড়ী চালানো যায় না তেমনি দু একদিন অনলাইন ট্রেনিং দিয়ে পিসিআর মেশিন চালানো সম্ভব না,

সরকারের উচ্চপযায়ে সত্যি তথ্য কেউ প্রকাশ করছে না, পিপিই যেমন সবার দরকার তেমনি পিপিই পড়ার ও তা ব্যবহাড় যেমন জানা দরকার তেমনি পিসিআর মেশিন চালানোর জন্য দক্ষ মেডিকেল টেকনোলজিস্ট দরকার, বরিশাল বিভাগে ২০১২ সালে শেরেবাংলা মেডিকেল ভিতরে তৈরি হয় ইনিস্টিউট অফ হেলফ টেকনোলজি কলেজ যা দীর্ঘ ৮ বছরের সরাসরি রাজস্ব খাতে যায় নি ফলে শুধু বিল্ডিং

ছাড়া সরকারি কোন মেশিন বরাদ্দ আসতো না, এখন আসে না, নামমাএ প্রেশনে কয়েক জন প্রভাষক আর মেডিকেল অফিসার দিয়ে কোন মতে চলছে কলেজটি, এই আইএইচটি র কাজ দক্ষ মেডিকেল টেকনোলজিস্ট তৈরী করা, সারা পৃথিবী তে পিসিআর মেশিন টেস্ট হয় আর ১০ বছর আগ থেকে এমন কি বাংলাদেশ ও কয়েকটি প্রাইভেট প্রতিস্টানে টেস্ট চলছে অনেক আগ থেকে, সবচেয়ে বড় কথা যদি সরকার উচ্চ পযায়ে রিপোর্ট করার গুরুত্ব দেওয়া হত অন্যান্য দেশের মত তাহলে আজ টেস্ট নিয়ে সরকারের চিন্তা করতে হতো না, মেশিন আসলেই টেস্ট করার যেত, বাংলাদেশ সব আইএইচটি গুলো একই অবস্থা, ফলে চিকিৎস ভাল রিপোর্ট পায় না,
এখন সবচেয়ে ভয়াবহ অবস্থা হবে যদি দক্ষ লোক দিয়ে করোনা কালেকশন না করানো হয় কারন পজিটিভ মানুষ নেগেটিভ আসবে তখন তারা সমাজে অবাধে ঘুড়ে বেড়াবে,
তৃতীয় ব্যাপার হল কালেশন করার পর পিসিআর মেশিন চালানো পযন্ত দক্ষ মেডিকেল টেকনোলজিস্ট খুব দরকার

২০০১৩ সালের পর কারিগরি থেকে ভুয়া আটস কমাস থেকে পাস কিছু ছাএ মামলা করলে আজ অবধি সরকারি নিয়োগ হয় নাই ফলে বাংলাদেশ প্রায় সব উপজেলা হাসপাতাল প্যাথলজি বিভাগ মেডিকেল টেকনোলজিস্ট পোস্ট শুন্য , ডেঙ্গু আসার পর মহামারি লাগলো তখন টনক নড়ে প্রশাষনের আবার সবাই ভুলে যায়,

মেডিকেল চালাতে চিকিৎসক যেমন প্রয়োজন তাদের সাহায্যের জন্য বিশ্বস্বাস্থ্যসংস্থা ১ চিকিৎসকের জন্য ৫ জন্য মেডিকেল টেকনোলজিস্ট আবশ্যক বলেছে সেখানে বেশির ভাগ সরকারি হাসপাতাল শুন্য, আবার, বিএসসি করা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধীনে মেডিকেল টেকনোলজিস্ট দের কোন পদ ই সরকারি হাসপাতালে তৈরি হয় নাই, এ এক মাফিয়া চক্র কাজ করছে আমাদের স্বাস্থ্য সেবায়,
লেখক:
তাহেরুল ইসলাম সুমন
প্রভাষক বিএসসি ল্যাব (ডিইউ)
বরিশাল আইএইচটি