১৮ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

শিরোনাম
বরিশাল শায়েস্তাবাদ চুড়ামন কমিউনিটি ক্লিনিকে থাকেনা ডাক্তার থাকেনা থোলা! দেখার কেউ নেই (পর্ব-১) ছাতা ধরে রাখলেন তরুণী রিকশাচালকের মাথায় হিজলার মেঘনায় ভাঙ্গন শুরু-ঝুকিতে পাঁচটি স্কুল-হুমকির মুখে উপজেলা প্রশাসনিক ভবণ সরকারের পূরণ হতে পারে মন্ত্রিসভার ‘শূন্যস্থান’ শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হকের ১৪৭ তম জন্মবার্ষীকিতে জীবন কর্মে পথচলা তথ্য হিজলা ডাক বিভাগের দুর্নীতির-অনিয়মের হালখাতা খুলছে ডাক বিভাগ – পর্ব ০২ আই ডি এল সি ফাইন্যাস সরকারি নির্দেশ অমান্য করে আদায়ের করে কিস্তি ,মাঠ কর্মীদের দেখে ব্যবসায়ীরা পালায়! (২য় পর্ব) বরিশালের  হিজলার মানচিত্রে শকুনের থাবা॥একক আসন মেহেন্দিগঞ্জ !(১ম পর্ব) বরিশাল হিজলায় রাজনীতি না ভিক্ষা চুরি নীতি

নুরুবাবুর্চির হত্যার বিচার দাবিতে হিজলায় মানববন্ধন

আপডেট: আগস্ট ১৮, ২০২১

সাইফুল ইসলাম,হিজলা:: নুরু বাবুর্চির বড়ছেলে ইমরান বাবুর্চি 18 আগষ্ট হিজলার উপজেলার গুয়াবাড়িয়ার কাউরিয়া স্কুল এন্ড কলেজের সামনে পিতার হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন করেন। মানববন্ধনে অংশ নেন বিভিন্ন পেশা শ্রেনীর মানুষ। তাদের দাবি বিচারটি যেন সুষ্টু তদন্ত হয়।
মানব বন্ধনে তারা জানান মামলাটি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে একটি মহল উঠে পড়ে লেগেছে। এর পেছনে রয়েছে সমাজের মোড়লদের হাত।
উল্লেখ্য জানা যায়, গত ১০ আগস্ট বিকালে মুলাদী উপজেলার নয়াভাঙ্গনী নদীর চরডিক্রী এলাকায় একটি লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে সংবাদ দেন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মুলাদি থানায় নিয়ে যায়। সংবাদ পেয়ে নুরু বাবুর্চির স্ত্রী ও স্বজনরা থানায় গিয়ে লাশ শনাক্ত করেন।

নুরু বাবুর্চি গত ৭ আগস্ট বিকাল থেকে নিখোঁজ ছিলেন। ওই ঘটনায় খাদিজা বেগম বাদী হয়ে দুলাল বাবুর্চি ও কাসেম খানসহ ১৪ জনকে আসামি করে মুলাদী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।
নিহতের স্ত্রী খাদিজা বেগম জানান, শনিবার বিকালে হিজলা উপজেলার চরপত্তনীভাঙ্গা গ্রামের শহীদ খানের ছেলে দুর্ধর্ষ কিলার কাশেম খান ফোন করে নুরু বাবুর্চিকে কথা শোনার জন্য বলেন। কাশেম খানের সঙ্গে দেখা করার জন্য নুরু বাবুর্চি ওই দিন সবাইকে বলে বাসা থেকে বের হন।

219 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন