হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা‘নিখোঁজ’

Monday, April 12th, 2021

হাটহাজারী(চট্টগ্রাম)প্রতিনিধি:: চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসায় হেফাজতে ইসলামের শীর্ষ নেতাদের বৈঠক হয় রোববার। বৈঠকে অংশ নেন হেফাজতের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী। বৈঠক শেষে চট্টগ্রামের চকবাজারের বাসায় ফেরার পথে ‘নিখোঁজ’ হন ইসলামাবাদী। এই দাবি করেছে তার পরিবার।

সোমবার দুপুর ১টায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তার কোনো সন্ধান পায়নি পরিবার। তাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আটক করেছে কিনা বা গুম হয়েছেন কিনা সেটি নিয়ে উৎকণ্ঠায় পরিবার।

সোমবার সকালে ইসলামাবাদীর ছোটভাই মুহাম্মদ ইরফানুল হক জানান, রোববার হাটহাজারী মাদ্রাসায় হেফাজতের বৈঠকশেষে মাগরিবের নামাজ পড়ে আমার ভাই মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী চট্টগ্রামের চকবাজারের বাসার উদ্দেশে রওনা দেন। সন্ধ্যা ৭টা নাগাদও তার সঙ্গে পরিবারের সদস্যদের যোগাযোগ হয়। এ সময় তিনি জানিয়েছেন, বাসার দিকে রওনা হয়েছেন; তার সঙ্গে একজন সফরসঙ্গী রয়েছে।

রাত ৮টার দিকে যোগাযোগ করা হলে তার ব্যবহৃত দুটি মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। সারারাত মোবাইল ফোন বন্ধ ছিল। সম্ভাব্য সব স্থানে খোঁজ নিয়েও তার কোনো সন্ধান পায়নি পরিবার। তবে সোমবার ভোর ৪টা থেকে ইসলামাবাদীর বন্ধ থাকা মোবাইল সচল হলেও ফোন রিসিভ হচ্ছে না। এমতাবস্থায় পরিবারের সদস্যরা উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় রয়েছেন বলে জানান ইসলামাবাদীর ছোটভাই মুহাম্মদ ইরফানুল হক।

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়েজী বলেন, আজিজুল হক ইসলামাবাদী ভাইকে রাত থেকে পাওয়া যাচ্ছে না। তাকে পুলিশ বা গোয়েন্দা সংস্থা আটক করেছে কিনা তাও আমরা জানি না। তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে।

এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় সাধারণ ডায়েরি করার প্রস্তুতি চলছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা তাকে আটক করেছে এমন কোনো তথ্য গণমাধ্যমকর্মীরা পাননি।

উল্লেখ্য, হেফাজত নেতা আজিজুল হক ইসলামাবাদী চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার হরিণখাইন এলাকার মাওলানা সৈয়দ আহমেদের বাড়ির হাফেজ আহমদ উল্লাহর ছেলে। তিনি ছয় ভাইবোনের মধ্যে সবার বড়।
তিনি পরিবার-পরিজন নিয়ে চট্টগ্রাম নগরীর চকবাজার এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। তিনি এক ছেলে ও এক কন্যাসন্তানের জনক বলে জানা গেছে।