১৮ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

শিরোনাম
বরিশাল শায়েস্তাবাদ চুড়ামন কমিউনিটি ক্লিনিকে থাকেনা ডাক্তার থাকেনা থোলা! দেখার কেউ নেই (পর্ব-১) ছাতা ধরে রাখলেন তরুণী রিকশাচালকের মাথায় হিজলার মেঘনায় ভাঙ্গন শুরু-ঝুকিতে পাঁচটি স্কুল-হুমকির মুখে উপজেলা প্রশাসনিক ভবণ সরকারের পূরণ হতে পারে মন্ত্রিসভার ‘শূন্যস্থান’ শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হকের ১৪৭ তম জন্মবার্ষীকিতে জীবন কর্মে পথচলা তথ্য হিজলা ডাক বিভাগের দুর্নীতির-অনিয়মের হালখাতা খুলছে ডাক বিভাগ – পর্ব ০২ আই ডি এল সি ফাইন্যাস সরকারি নির্দেশ অমান্য করে আদায়ের করে কিস্তি ,মাঠ কর্মীদের দেখে ব্যবসায়ীরা পালায়! (২য় পর্ব) বরিশালের  হিজলার মানচিত্রে শকুনের থাবা॥একক আসন মেহেন্দিগঞ্জ !(১ম পর্ব) বরিশাল হিজলায় রাজনীতি না ভিক্ষা চুরি নীতি

পুলিশের এক হাতে ডাকাত আটক-আবডালে ডাকাতির ট্রলার বিক্রি !

আপডেট: আগস্ট ১, ২০২১

সাইফুল ইসলাম,হিজলা:: ২৭ জুলাই হিজলায় ৪ ডাকাত আটক। হিজলা থানায় মামলা। অপর দিকে ডাকাতির আলামত জব্দ করলেও পুলিশকে ফাকি দিয়ে অনৈতিক লেনদেনের মাধ্যমে ডাকাতির অপর আর একটি ট্রলার বিক্রি করে দিয়েছে একটি মহল।থানা পুলিশ নৌ পুলিশের ওসি কিছুই জানে না।
সূত্র জানায় ২৬ জুলাই হিজলা উপজেলার হিজলাগৌরব্দী ইউনিয়নের প্রত্যন্ত মেঘনা নদীর খালিশপুর এলাকায় রাতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে।একই রাতে চাঁদপুরের হাদেরগঞ্জ এলাকার ৮ জেলে সহ একটি চ্রলার নিয়ে আসে ডাকাতি মামলার প্রধান আসামি সুজন।পুলিশ সুজনের ব্যবহৃত ট্রলার আটক করতে পালেও একটি মহল ডাকাতির বা ছিনতাইকৃত ট্রলারটি পুলিশের জব্দ তালিকায় স্থান পায়নি।
ভুক্তভোগি ইউনুছ শিকদার বাদশা, হাচান খা, জাহাঙ্গীর জানান, ট্রলার দিয়ে মাছ শিকার করছিলেন। রাতে ট্রলারে হামলা চালায় ডাকাত সরদার সুজনসহ একটি ডাকাত গ্রুপ। তাদের আহত করে মেঘনায় ফেলে দেয় ডাকাত দল।এর পর ডাকাত দল অপর দুটি ট্রলারে হামলা চালায়।একটি ট্রলার মেঘনায় ডুবিয়ে দেয় তারা। অপর একটি ট্রলার ৮ জন জেলেসহ ডাকাতি করে হিজলাগৌরব্দীর কাকুরিয়া এলাকায় নিয়ে আসে বলে জানান ভুক্তভোগিসহ অপর একটি সূত্র।
অপর দিকে ডাকাত সুজন বিজয় নিউজকে জানান, তিনি চাদপুরের হাদেরগঞ্জ এলাকার মামুন মুন্সির কাছ থেকে একটি ট্রলার ছিনতাই করে নিয়ে আসেন।সেটি ইউপি সদস্য আলাউদ্দিন দফাদার, জাহের আকনের কাছে জমা রাখেন।পরবর্তী বিষয় কিছুই জানে না।
এদিকে স্থানীয় হিজলাগৌরব্দী ইউপি সদস্য আলাউদ্দিন দফাদার, ইউপি সদস্য জাহের আকন এবং ইউপি সদস্য ইসমাইল হোসেন সরদার জানান, ডাকাত সুজন ও তার দলবল একটি ট্রলার ২৬ জুলাই মেঘনায় ডাকাতি শেষে নিয়ে আসে।২৭ জুলাই ট্রলার মালিক হাদেরেগঞ্জের মোস্তাকের হাতে তুলে দেন তারা। এ বিষয়ে থানা পলিশ এবং নৌ পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে।
হিজলা থানা পুলিশের এস আই আরিফ,এস আই আমিনুল ইসলাম, নৌ পুলিশের এস আই মজিবুর রহমান ২৭ জুলাই হিজলাগৌরব্দীর একতা বাজার এলাকা থেকে সুজন সহ চার জনকে আটক করে এবং তাদের ব্যবহৃত একটি ট্রলার আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। এ বিষয় একটি ডাকাতির মামলা হয়। মামলা নং ১৩ তারিখ । গোপনে কেউ কিছু করে থাকলে তা তাদের জানা নেই। তবে তাদের অনুপস্থিতিতে একটি ট্রলার আটক এবং ছেড়ে দেওয়া তথ্য তাদের কাছে আসছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন।

160 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন