১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

বোনের উত্যাক্তের প্রতিবাদে ভাই হামলার শিকার, ঠিকানা হাসপাতালে

আপডেট: জুলাই ২৯, ২০২২

সাইফুল ইসলাম ::  বেড়েই চলছে হিজলা উপজেলায় কিশোর গ্যাং এর অপরাধ। মাদক, চুরি, ছিনতাই, শ্ণিলতাহানি, ইভটিজিং সহ নানা অপরাধের সর্গরাজ্য হিজলা। অ নিরাপদ স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা। কোন না কোন অপরাধের সাথে জরিয়ে পড়ছে তারা। প্রশাসনকে দাঢি করছেন স্থানীয়রা।
হিজলায় স্কুল-মাদরাসায় পড়ুয়া ছাত্রীরা প্রতিনিয়ত রাস্তায় উত্যকক্তের স্বীকার হচ্ছেন প্রকাশ্যে। এদের একটি কিশোর গ্যাংএর গ্রুপ উপজেলায় সক্রিয়। বোনকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় কিশোর গ্যাংএর হামলার শিকার ভাই হিজলা হাসপাতালে।
২৭ জুলাই বুধবার বেলা ৪ টার সময় উপজেলার বড়জালিয়া ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামের এমন ঘটনা ঘটে।
কিশোর গ্যাংদের হামলার শিকার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শ্রীপুর গ্রামের কালাম বেপারীর ছেলে জিহাদুল ইসলাম। তিনি জানান, বুধবার বিকাল ৪ টার সময় আমাদের বাড়ি সংলগ্ন চায়ের দোকানে বসা ছিলাম। তখন আমার বোনসহ কয়েকটি মেয়ে মাদরাসা থেকে বাড়ি ফিরছিল। সেখানে কিশোর গ্যাং ফরাদ খা আবদুল্লাহ মেযেদের অশালীন কথাকার্তা বলছে। তখন আমি প্রতিবাদ করলে আমাকে দেখে নেওয়া হুমকি দেয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাত ৭ টার দিকে আল-আমিন ইয়ামিন ফরাদ রাজিবসহ ৮/১০ জন একত্রিত হয়ে আমাকে এলোপাতাড়ি মারপিট করে।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোমান বেপারীর ছেলে ইয়ামিন জানান, গতকাল আমার চাচাত ভাইকে মারধরের সংবাদ শুনে ঘটনাস্থনে যাই। তখন তারা আমাকে মারপিট করে।
উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মঞ্জুর মোর্শেদ টিটু জানান, এলাকায় কিশোর গ্যাং বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ড করছে। তাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে অভিভাবকরা ও উস্কানি দিচ্ছে। প্রশাসনও বিষয়টিকে সায় দিচ্ছেন বলে মনে হচ্ছে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য ইলিয়াছ হোসেন জানান, বিষয়টি অমানবিক। তিনি প্রশাসনকে আইনগত েব্যবস্থা নেয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন।
উল্লেখ্য এর আগে কিশোর গ্যাং এর একটি গ্রুপকে টেকের বাজার পহারাদার হাতেনাতে ধরে হিজলা থানা পুলিশকে সোপর্দ করে। অভিযোগ রাতে তারা কোষ্টগার্ডের কল চুরি করে নিয়ে যাচ্ছিলেন। থানা পুলিশের সহযোগিতায় তাদের ছেড়ে দেয়া হয়। এটি কি পুলিশের হিজলা কিশোর গ্যাং এর সাথে সখ্যতা নয়কি? এমন প্রশ্ন সচেতন মহলের।
হিজলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইউনুস মিয়া জানান, কিশোরদের মারামারির বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা।’

70 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন