২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

মধুপুরে কবরে জমি দখল করে ঘর তোলার প্রতিবাদ করায় হামলায় আহত-২

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২২

মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ: টাঙ্গাইলের মধুপুরের মির্জাবাড়ী ইউনিয়নের ভবানিটেকী গ্রামে পারিবারিক কবর স্হানের জায়গা বেদখল দিয়ে ঘর তোলার প্রতিবাদ করায় দুই জনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে বলে মামলা ও এলাকা বাসী সূত্রে জানা যায়। এব্যাপারে মধুপুর থানায় একটি মামলা হয়েছে যার নং ১৫/২২। মামলা সূত্রে জানা যায় ভাবানিটেকী এলাকায় বাদী শামছুল আলম পিতা হাজী শহিদুল ইসলামদের সাহিত পারিবারিক কবর স্হানের সম্পত্তি নিয়ে একই এলাকার রমিহ মন্ডলের ছেলে ছানোয়ারদের সহিত দীর্ঘ দিন যাব্য বিরোধ চলে আসছে। এর জের ধরে গত ১১ সেপ্টেম্বর দুপুরে উল্লেখিত মামলার বিবাদীগন দেশীয় অস্ত্র সস্র নিয়ে কবর স্হানে নামে রাখা বাদী পক্ষের সম্পত্তিতে জোর পূর্বক ঘর উঠানোর চেষ্ঠা করলে বাদীর ছোট ভাই শরিফ( ৩৪) ঘর তুলতে নিষেধ করায় বিবাদী রহিম মন্ডলের ছেলে ছানোয়ার(৫৫) ছানোয়ারের ছেলে সোহাগ, কেরামত আলী, সোহাগের স্তী শীলা বেগম,মেয়ে চৈতী খাতুন অজ্ঞাত নামা কয়েক জন মিলে মামলার বাদীর ভাই শরিফকে দা দিয়ে মাথায় কোপ দিয়ে রক্তাক্ত গুরুতর জখম করে এবং বাশের লাঠি দিয়ে বাইরাইয়া শরীরের বিভিন্ন স্হানে গুরুতর জখম করে। ভাইকে মারতে দেখে বাদী সামছুল আলম ফিরাইতে গেলে তাকেও বিবাদীগন এলোপাথারী ভাবে লাঠি দিয়ে বাইরাইয়া গুরুতর জখম করে। এসময় তার নিকট থাকা একটি সাওমী মোবাইল ফোন নিয়ে যায়। বাদী পক্ষের ডাকচিৎকার শুনে আশে পাশের লোকজন আগাইয়া আসলে বিবাদীগন নানা প্রকার হুমকী দিয়ে পালিয়ে যায়। লোকজন বাদীর ছোট ভাই শরিফ মামলার বাদী সামছুলল আলমকে রক্তাক্ত অবস্হায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য মধুপুর সরকারী হাসপাতালে নিয়ে যায়। আহত শরিফের অবস্হা আশংকাজনক দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। বর্তমানে শরিফ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পান্জা লড়ছেন বলে জানান পরিবারের লোকজন। এ নির্মম ঘটনার তীব্র নিন্দা ও সঠিক বিচার প্রার্থনা করেন এলাকাবাসী ।

19 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন