২৩শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

হজ ফ্লাইট শুরু ৩১ মে, বিমান ভাড়া ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা

আপডেট: এপ্রিল ২৭, ২০২২

বিজয় নিউজ:: এবার হজ ফ্লাইট শুরুর সম্ভাব্য তারিখ ধরা হয়েছে আগামী ৩১ মে। হজযাত্রীদের বিমান ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

বুধবার (২৭ এপ্রিল) সচিবালয়ে হজ ব্যবস্থাপনা নিয়ে সভা শেষে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তবে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করে ৩১ মে’র মধ্যে প্রথম হজ ফ্লাইট পরিচালনা করা সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছেন হজ এজেন্সিস অব এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) নেতারা। একইসঙ্গে বিমান ভাড়াও কমানোর দাবি জানিয়েছেন হাব সভাপতি।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৯ জুলাই সৌদি আরবে পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হতে পারে। চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে ৫৭ হাজার ৮৫৬ জন হজে যেতে পারবেন বলে এরইমধ্যে ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে। করোনা মহামারিকে সৌদি আরবের নিষেধাজ্ঞার কারণে গত দু-বছর বাংলাদেশ থেকে কেউ হজে যেতে পারেননি।

বিমান প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বলেন, গত দুই বছর আমরা হজ করতে পারিনি। এ বছর আশার আলো দেখতে পাচ্ছি। হাজী সাহেবরা যেন নির্বিঘ্নে যেতে পারে, সেজন্য আমরা বসে কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছি। অত্যন্ত দ্রুততম সময়ের মধ্যে আমাদের কাজগুলো করতে হবে।

তিনি বলেন, ৩১ মে প্রথম হজ ফ্লাইট হবে সে ধারণা নিয়ে আলোচনায় বসেছি। এরমধ্যে যেন সবকাজ সম্পন্ন করতে পারি, এ ব্যাপারে আমরা সবাই আলোচনা করে ঐক্যবদ্ধভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, এবার আমরা দুটি বড় ৭৭৭ বিমানের ডেডিকেটেড ফ্লাইটের মাধ্যমে হজযাত্রীদের নেব। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ৭৫টি ফ্লাইট অপারেশন করতে পারবে। বিমান বাংলাদেশের মাধ্যমে ৩১ হাজার হজযাত্রী পরিবহন করতে হবে। বাকি অর্ধেক যাত্রী সৌদি এয়ারলাইন্স বহন করবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজ করেছি। বিশেষ করে বাংলাদেশেই হজযাত্রীদের ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করা। সৌদি কর্তৃপক্ষের কাছে আমরা ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই, তারা আমাদের সহযোগিতা করেছেন। এখানে ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করার জন্য সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছেন। অনেক বড় একটা প্রতিনিধিদল এসেছিলেন, তারাও নিজেরা দেখেছেন। তাদের সহযোগিতা আরও বাড়াবেন। এই বছর যেন পুরো পারেশনে যেতে পারি রোড টু মক্কা, সেজন্য তারা তাদের সহযোগিতার হাত সম্প্রসারিত করবে।

ভাড়া কত নির্ধারিত হয়েছে জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আপনারা জানেন জ্বালানি খরচ প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। সেক্ষেত্রে সবকিছু বিবেচনায় নিয়ে দেখা গেছে ভাড়া দেড় লাখ টাকা আসে। কিন্তু হাজী সাহেবদের কল্যাণের কথা চিন্তা করে, যেন ভাড়াটা তাদের জন্য বহনযোগ্য ও গ্রহণযোগ্য হয়, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি বিমান ভাড়া হবে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা। সৌদি এয়ারলাইন্সের ক্ষেত্রে এ ভাড়া থাকবে।

২০১৯ সালে বিমান ভাড়া এক লাখ ২৮ হাজার টাকা ছিলো বলেও জানান মাহবুব আলী।

সভায় ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী এনামুল হাসান, বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোকাম্মেল হোসেন, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আবু সালেহ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল এবং সৌদিয়া এয়ারলাইন্সের প্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্ট সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

43 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন